বৃহস্পতিবার, জুলাই ২৫, ২০২৪

জল জিরা ও জিরা পানি : পার্থক্য ও উপকারিতা

by ঢাকাবার্তা
জিরা পানি

ফিচার ডেস্ক ।। 

জল জিরাজিরা পানি প্রায় একই উপাদান থেকে তৈরি হলেও তারা সম্পূর্ণ ভিন্ন পানীয়। তাদের প্রস্তুতি এবং উপাদান ব্যবহারের মধ্যে বেশ কিছু পার্থক্য রয়েছে। নিচে বিস্তারিতভাবে তাদের উপকারিতা এবং প্রস্তুতির পদ্ধতি তুলে ধরা হলো:

জল জিরা

জল জিরা একটি জনপ্রিয় ভারতীয় পানীয় যা গ্রীষ্মকালে বেশি পরিমাণে পান করা হয়। এটি তাজা এবং ঠান্ডা পানীয় হিসেবে পরিচিত। এর মূল উপাদান হলো জিরা (জিরার গুঁড়া বা ভাজা জিরা), কিন্তু এতে আরও অনেক উপাদান মেশানো হয়। জল জিরাতে সাধারণত নিম্নলিখিত উপাদানগুলো মেশানো হয়:

১. ভাজা জিরার গুঁড়া ২. পুদিনা পাতা ৩. ধনেপাতা ৪. কালো লবণ ৫. চিনি বা গুড় ৬. লেবুর রস ৭. আদা ৮. পানি

এই উপাদানগুলো মিশিয়ে একটি তাজা এবং মজাদার পানীয় তৈরি করা হয়, যা তৃষ্ণা মেটাতে এবং শরীরকে ঠান্ডা রাখতে সহায়তা করে।

জল জিরা তৈরির পদ্ধতি:

১. প্রথমে জিরা ভেজে গুঁড়ো করে নিন। ২. একটি বড় বাটিতে ভাজা জিরার গুঁড়ো, পুদিনা পাতা, ধনেপাতা, কালো লবণ, চিনি বা গুড়, লেবুর রস এবং আদা মেশান। ৩. এরপর এতে পানি যোগ করুন। ৪. সবকিছু ভালভাবে মিশিয়ে ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করুন। ৫. ঠান্ডা অবস্থায় পরিবেশন করুন।

জিরা পানি

জিরা পানি মূলত একটি সাধারণ পানীয় যা শুধু জিরা দিয়ে প্রস্তুত করা হয়। এটি স্বাস্থ্যগত উপকারিতার জন্য পরিচিত। জিরা পানির প্রস্তুতি পদ্ধতি অনেক সহজ:

১. এক গ্লাস পানি গরম করুন। ২. এক চামচ জিরা যোগ করুন। ৩. পানিটিকে সারা রাত রেখে দিন। ৪. সকালে খালি পেটে ছেঁকে পান করুন।

জিরা পানির উপকারিতা:

১. হজমশক্তি বৃদ্ধি ২. ওজন কমানো ৩. দেহের ডিটক্সিফিকেশন ৪. পেটের গ্যাস কমানো ৫. ত্বকের স্বাস্থ্য উন্নতি

উপসংহার

তাদের মূল উপাদান একই হলেও জল জিরা এবং জিরা পানি ভিন্ন ভিন্ন পানীয়। জল জিরা হল একটি মজাদার এবং তাজা পানীয়, যেখানে বিভিন্ন মশলা ও উপাদান মেশানো হয়। অন্যদিকে, জিরা পানি হল সহজ এবং সরল পানীয়, যা সাধারণত স্বাস্থ্য উপকারিতার জন্য পান করা হয়।

প্রকাশক : জিয়াউল হায়দার তুহিন

সম্পাদক : হামীম কেফায়েত

গ্রেটার ঢাকা পাবলিকেশন
নিউমার্কেট সিটি কমপ্লেক্স
৪৪/১, রহিম স্কয়ার, নিউমার্কেট, ঢাকা ১২০৫

যোগাযোগ : +8801712813999

ইমেইল : news@dhakabarta.net