বৃহস্পতিবার, জুলাই ২৫, ২০২৪

টেসলায় ইলন মাস্কের বাৎসরিক বেতন ৫৬ বিলিয়ন ডলার

প্রত্যাশিত বেতন না পেলে টেসলা ছেড়ে অন্য প্রতিষ্ঠানে চলে যাবেন বলে জানিয়েছিলেন ইলন মাস্ক।

by ঢাকাবার্তা
ইলন মাস্ক

ঢাকাবার্তা ডেস্ক ।। 

টেসলার বিনিয়োগকারীরা প্রধান নির্বাহী ইলন মাস্কের জন্য ৫৬ বিলিয়ন ডলারের বেতন প্যাকেজ অনুমোদন এবং প্রতিষ্ঠানটির আইনি সদর দপ্তর ডেলওয়্যার থেকে টেক্সাসে সরিয়ে নেওয়ার পক্ষে ভোট দিয়েছেন।

বিনিয়োগকারীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করে ইলন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্স-এ বলেন, ‘ধন্যবাদ আপনাদের সমর্থনের জন্য।’

চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে যুক্তরাষ্ট্রের অঙ্গরাজ্য ডেলাওয়্যারের এক আদালত ইলন মাস্কের বেতন-ভাতা ক্রুটিপূর্ণ ও প্রয়োজনের তুলনায় অতিরিক্ত বলে রায় দিয়েছিলেন। প্রতিষ্ঠানটির পরিচালনা পর্ষদকে ইলনের সাথে নতুন চুক্তি করার আদেশ দেন।

প্রত্যাশিত বেতন না পেলে টেসলা ছেড়ে অন্য প্রতিষ্ঠানে চলে যাবেন বলে জানিয়েছিলেন ইলন মাস্ক।

তবে ইলন মাস্ককে এখনও আইনি লড়াইয়ের মধ্যে দিয়ে যেতে হবে। বিনিয়োগকারীরা ইলনের ৫৬ বিলিয়নের বেতন প্যাকেজে রাজি হলেও ডেলওয়্যারের আদালত তা অনুমোদন দেবেন কিনা এখনও স্পষ্ট নয়। নতুন এ ভোটাভুটির ওপরও আবার মামলা হতে পারে।

ইউসি বার্কলের আইনের অধ্যাপক অ্যাডাম বাদাওয়ি বলেন, ‘শেয়ারহোল্ডাররা পুরানো প্যাকেজটি অনুমোদন করলেও ডেলাওয়্যার আদালত সেই ভোটকে কার্যকর হতে দেবে কিনা তা স্পষ্ট নয়।’

বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় বিকেল সাড়ে ৪টায় টেক্সাসে টেসলার প্রধান কার্যালয়ে এক বৈঠকে ফলাফল ঘোষণা করা হবে।

একটি সূত্র জানিয়েছে, বড় প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী ও খুচরা বিনিয়োগকারীদের সমর্থনে ‘হ্যাঁ’ ভোট অর্জিত হয়েছে।

প্রধান উপদেষ্টা সংস্থা, গ্লাস লুইস এবং ইনস্টিটিউশনাল শেয়ারহোল্ডার সার্ভিসেস (আইএসএস) বেতন প্যাকেজের বিরুদ্ধে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়েছিল। তবে নরওয়ের সোভারেন ওয়েলথ ফান্ডের মতো বড় বিনিয়োগকারীরা জানিয়েছিলেন যে তারা বেতন প্যাকেজ অনুমোদন দেয়ার পক্ষে থাকবেন। অবশ্য শেয়ারহোল্ডাররা বার্ষিক সভা শুরু না হওয়া পর্যন্ত তাদের ভোট পরিবর্তন করতে পারবেন।

বিনিয়োগকারীরা  টেসলার আইনি সদর দপ্তর ডেলাওয়্যার থেকে টেক্সাসে স্থানান্তরের পাশাপাশি দুই বোর্ড সদস্য: মাস্কের ভাই কিম্বাল মাস্ক এবং জেমস মারডকের পুনর্নির্বাচনসহ অন্যান্য প্রস্তাবগুলোতেও ভোট দিয়েছেন।

টেক্সাসের গভর্নর গ্রেগ অ্যাবট, মাস্ককে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, ‘এমন একটি রাজ্যে আপনাকে স্বাগতম যেখানে ব্যক্তিগত বা কর্পোরেট আয়কর দেয়া লাগে না।’

ইলনকে টেসলার সাফল্যের চাবিকাঠি হিসেবে দেখা হলেও সম্প্রতি প্রতিষ্ঠানটির বিক্রি ও মুনাফা হ্রাস পেয়েছে।

গত বছরের চতুর্থ প্রান্তিকে তাদের মুনাফা হয়েছে ১৭ দশমিক ৬ শতাংশ; গত চার বছরের মধ্যে যা ছিল সবচেয়ে কম।

টেসলার প্রধান নির্বাহী ও প্রধান শেয়ারহোল্ডার হওয়ার পাশাপাশি ইলন মাস্ক সাবেক টুইটার ও বর্তমান এক্সের মালিক। এ ছাড়া রকেট কোম্পানি স্পেসএক্স, ব্রেন চিপ ফার্ম নিউরালিংক, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রতিষ্ঠান এক্সএআইসহ বেশ কয়েকটি কোম্পানির মালিক তিনি। এক্স কেনার জন্য টেসলার শেয়ারের বড় একটি অংশ বিক্রি করে দিয়েছিলেন ইলন মাস্ক। বর্তমানে এক্সের প্রায় ১৩ শতাংশ শেয়ারের মালিক তিনি।

ক্যালিফোর্নিয়া পাবলিক এমপ্লয়িজ রিটায়ারমেন্ট সিস্টেমের প্রধান নির্বাহী মার্সি ফ্রস্ট বলেন, ইলনের বেতন প্যাকেজ তাকে তার মালিকানা বাড়িয়ে, অন্যান্য শেয়ারহোল্ডারদের মূল্য হ্রাস করবে।

শেয়ারহোল্ডারদের বৈঠকের একদিন আগে বুধবার টেসলার স্টক ৩.৯ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। টেসলার পরিচালনা পর্ষদ ইলনের বেতন প্যাকেজের জন্য সমর্থন আদায়ের জন্য বেশ চেষ্টা চালাচ্ছে , বিশেষত খুচরা বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে, যারা প্রচুর শেয়ারের মালিক কিন্তু প্রায়শই ভোট দেয় না।

টেসলার জন্য মাস্কের গুরুত্ব তুলে ধরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বার্তা দিয়েছেন নির্বাহীরা।

পরিচালনা পর্ষদ বলছে যে মাস্ক বেতন প্যাকেজের যোগ্য কারণ তিনি বাজার মূল্য, আয় এবং লাভের সমস্ত লক্ষ্য পূরণ করেছেন। তারা বিশ্বাস করে যে ইলনের টেসলার ওপর মনযোগ ধরে রাখার জন্য প্যাকেজটি প্রয়োজনীয়।

যদিও একজন বিচারক এর আগে রায় দিয়েছিলেন যে ২০১৮ সালের বেতন পরিকল্পনা নিশ্চিত করে না যে মাস্ক প্রতিষ্ঠানটিতে পর্যাপ্ত সময় ব্যয় করবেন।

You may also like

প্রকাশক : জিয়াউল হায়দার তুহিন

সম্পাদক : হামীম কেফায়েত

গ্রেটার ঢাকা পাবলিকেশন
নিউমার্কেট সিটি কমপ্লেক্স
৪৪/১, রহিম স্কয়ার, নিউমার্কেট, ঢাকা ১২০৫

যোগাযোগ : +8801712813999

ইমেইল : news@dhakabarta.net