বৃহস্পতিবার, জুলাই ২৫, ২০২৪

তিস্তার তীরে বুকফাটা কান্না

by ঢাকাবার্তা
নদীগর্ভে বিলীন একের পর এক বসতভিটা

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি ।। 

বিভা রানী, কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার বিদ্যানন্দ ইউনিয়নের বাসিন্দা, তিস্তার ভাঙনে তাঁর বসতভিটা হারিয়েছেন। ঘর-বাড়ি সরিয়ে নেওয়ার সময় তিনি কান্নায় ভেঙে পড়েন। একই গ্রামে অনেকেই ঘরবাড়ি সরিয়ে নিচ্ছেন, কেউ স্কুলের আঙিনায় উপকরণ রেখেছেন, কেউবা বাজারের দোকানে আশ্রয় নিয়েছেন।

তিস্তার ভাঙনের হুমকিতে শতাধিক পরিবার এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান রয়েছে। বানেশ্বর-ভারতী রানী দম্পতি এখনও তাদের বাড়ি সরাননি। ভারতী জানান, তারা এখন শুধু আশা করছেন নদী তাদের দয়া করবে।

নদীর পাড়ে ফজলুল হক তাঁর ঘরবাড়ি সরিয়ে নিচ্ছেন এবং সরকারের কাছে এলাকাটি রক্ষার জন্য অনুরোধ করছেন। বিদ্যানন্দ ইউনিয়নের ইউপি সদস্য সেফারুল ইসলাম জানান, তিস্তার ভাঙনে অনেক পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

কুড়িগ্রামের পাউবো নির্বাহী প্রকৌশলী রাকিবুল হাসান বলেন, তিস্তার ভাঙন রোধে ২০০ মিটার এলাকায় জিও ব্যাগ ফেলার কাজ দু-একদিনের মধ্যে শুরু হবে। তবে, কত পরিবারের বসতভিটা নদীগর্ভে বিলীন হওয়ার পর এই কাজ শুরু হবে, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন স্থানীয়রা।

You may also like

প্রকাশক : জিয়াউল হায়দার তুহিন

সম্পাদক : হামীম কেফায়েত

গ্রেটার ঢাকা পাবলিকেশন
নিউমার্কেট সিটি কমপ্লেক্স
৪৪/১, রহিম স্কয়ার, নিউমার্কেট, ঢাকা ১২০৫

যোগাযোগ : +8801712813999

ইমেইল : news@dhakabarta.net