বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২৪

নীতি সুদহারের পর বাড়লো ঋণের সুদহার

এখন থেকে ‘এসএমএআরটি’ বা ‘স্মার্ট’ রেট বাড়িয়ে সাড়ে ৩ শতাংশে উন্নীত করা হয়েছে

by ঢাকাবার্তা ডেস্ক
নীতি সুদহারের পর বাড়লো ঋণের সুদহার

নীতি সুদহারের বৃদ্ধির পর এবার ঋণের সুদহার বাড়ানোর ঘোষণা দিলো কেন্দ্রীয় ব্যাংক। অনিয়ন্ত্রিত মূল্যস্ফীতি সামাল দিতেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এখন থেকে ‘এসএমএআরটি’ বা ‘স্মার্ট’ রেট বাড়িয়ে সাড়ে ৩ শতাংশে উন্নীত করা হয়েছে। পাশাপাশি প্রি-শিপমেন্ট রফতানি ঋণ ও পল্লী ও কৃষি ঋণের সুদহার নির্ধারণের ক্ষেত্রে স্মার্টের সঙ্গে সর্বোচ্চ ২ শতাংশের বদলে সর্বোচ্চ আড়াই শতাংশ মার্জিন যোগ করতে হবে।

বৃহস্পতিবার (৫ অক্টোবরর) বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত সার্কুলার জারি করা হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, বর্তমান বৈশ্বিক ও অভ্যন্তরীণ অবস্থার প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে মূল্যস্ফীতির ওপর বিরূপ প্রভাব পড়ছে। এমন পরিস্থিতিতে মূল্যস্ফীতি পর্যায়ক্রমে হ্রাস করার লক্ষ্যে নিম্নবর্ণিত নির্দেশনা পরিপালন করতে হবে।

ক) ঋণের সুদহার নির্ধারণের ক্ষেত্রে ‘স্মার্ট’ রেট এর সঙ্গে সর্বোচ্চ ৩ শতাংশের স্থলে সর্বোচ্চ ৩ দশমিক ৫ শতাংশ মার্জিন যোগ করে সুদহার নির্ধারণ করতে হবে।

খ) প্রি-শিপমেন্ট রফতানি ঋণ এবং কৃষি ও পল্লী ঋণের সুদহার নির্ধারণের ক্ষেত্রে ‘স্মার্ট’ রেট এর সঙ্গে সর্বোচ্চ ২ শতাংশের স্থলে সর্বোচ্চ ২ দশমিক ৫ শতাংশ মার্জিন যোগ করে সুদহার নির্ধারণ করতে হবে।

উল্লেখ্য, জুলাই মাসে চালু হওয়া বাজারভিত্তিক সুদহার ব্যবস্থার নিয়ম অনুযায়ী গত সেপ্টেম্বরে নেওয়া নতুন ঋণের ক্ষেত্রে ‘স্মার্ট’ (সিক্স মান্থস মুভিং এভারেজ রেট অব ট্রেজারি বিল) সুদহার করিডোর ১০ দশমিক ১৪ শতাংশ নির্ধারণ করে দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

প্রতি ছয় মাসের গড় সুদহার হচ্ছে ‘স্মার্ট’ রেট।  এর আগে গত জুন ও জুলাই মাসের ‘স্মার্ট’রেট ছিল ৭ দশমিক ১০ শতাংশ। এতে সেপ্টেম্বর মাসে নেওয়া ঋণের বিপরীতে ব্যাংকগুলো গ্রাহকদের কাছ থেকে সর্বোচ্চ ১০ দশমিক ১৪ শতাংশ সুদ নিতে পারছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন নির্দেশনা অনুযায়ী ঋণের সুদহার নির্ধারণের ক্ষেত্রে এই ‘স্মার্ট’ রেটের সঙ্গে সর্বোচ্চ ৩ দশমিক ৫ শতাংশ মার্জিন যোগ করে সুদহার নির্ধারণ করতে পারবে।

চলতি বছরের জুলাইয়ে ১৮২ দিন মেয়াদি ট্রেজারি বিলের ছয় মাসের গড় সুদহার (স্মার্ট রেট) ছিল ৭ দশমিক ১০ শতাংশ, যা আগস্টে হয় ৭ দশমিক ১৪ শতাংশ। সর্বশেষ সেপ্টেম্বরে তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭ দশমিক ২০ শতাংশে।

নতুন নির্দেশনা অনুযায়ী, সেপ্টেম্বর মাসের ‘স্মার্ট’ হারের সঙ্গে সর্বোচ্চ সাড়ে ৩ শতাংশ হারে মার্জিন বা সুদ যোগ করে অক্টোবর মাসে ঋণ দিতে পারবে ব্যাংক। সেই হিসেবে, চলতি অক্টোবর মাসে ব্যাংক থেকে বড় অংকের ঋণে সর্বোচ্চ ১০ দশমিক ৭০ শতাংশ সুদ দিতে হবে। প্রি-শিপমেন্ট রফতানি ঋণের সুদহার হবে ৯ দশমিক ৭০ শতাংশ। তবে কৃষি ও পল্লী ঋণের ক্ষেত্রে আগের মতো সর্বোচ্চ ৯ দশমিক ২০ শতাংশ সুদ দিতে হবে।

আরও পড়ুনঃ বাড়ছে ডিশ বিল

You may also like

প্রকাশক : জিয়াউল হায়দার তুহিন

সম্পাদক : হামীম কেফায়েত

গ্রেটার ঢাকা পাবলিকেশন
নিউমার্কেট সিটি কমপ্লেক্স
৪৪/১, রহিম স্কয়ার, নিউমার্কেট, ঢাকা ১২০৫

যোগাযোগ : +8801712813999

ইমেইল : news@dhakabarta.net