বৃহস্পতিবার, জুলাই ২৫, ২০২৪

বাইডেন না সরলে ডেমোক্র্যাট তহবিলে অর্থ দেবে না ডিজনি

নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট বাইডেনের বিকল্প হিসেবে ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসের নাম প্রস্তাব করেছে তারা

by ঢাকাবার্তা
ওয়াল্ট ডিজনি ও জো বাইডেন

ঢাকাবার্তা ডেস্ক ।। 

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন সামনে রেখে এবার জো বাইডেনের থেকে মুখ ফেরানো শুরু করেছেন অর্থদাতারা। এরই মধ্যে তাঁর দল ডেমোক্রেটিক পার্টির তহবিলে অর্থ না দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে প্রভাবশালী ডিজনি পরিবার। এতে ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বিতর্ক বিপর্যয়ের পর বাইডেন যে ঘোরতর সংকটে পড়েছেন, তা আরও গভীর হলো।

৮১ বছর বয়সী বাইডেন নির্বাচনী প্রতিদ্বন্দ্বী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে কতটা সামাল দিতে পারবেন, সে প্রশ্ন আগেই ছিল। ২৭ মে প্রথম সরাসরি নির্বাচনী বিতর্কে বাইডেনের ভরাডুবির পর সে প্রশ্ন জোরলো হয়। নিজ দলের অনেকেই এখন বাইডেনকে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে বলছেন। তাঁর প্রার্থিতা নিয়ে নাখোশ অর্থদাতারাও। তবে তাদের মধ্যে ডিজনি পরিবারই প্রথম বাইডেনকে সমর্থন না দেওয়ার কথা বলল।

ডিজনি পরিবার ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রধান অর্থদাতাদের একটি। গত বৃহস্পতিবার এই পরিবারের উত্তরাধিকারী অ্যাবিগেইল ডিজনি এক বিবৃতিতে বলেন, জো বাইডেন যদি নির্বাচন থেকে সরে না দাঁড়ান, তাহলে তাঁর দলকে অনুদান দেওয়া বন্ধ করবেন তিনি। কারণ তিনি নিশ্চিত, বাইডেন নির্বাচন থেকে সরে না দাঁড়ালে ডেমোক্র্যাটদের পরাজয় হবে। এর ফল হবে খুবই ভয়ানক।

নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট বাইডেনের বিকল্প হিসেবে ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসের নাম প্রস্তাব করেছেন অ্যাবিগেইল ডিজনি। তিনি বলেন, ‘ডেমোক্র্যাটরা বাইডেনের যে পরিমাণ ভুলত্রুটি মেনে নিয়েছেন, তার ১০ ভাগের এক ভাগও যদি কমলা হ্যারিসের ক্ষেত্রে মেনে নেন, তাহলে আমরা অনেক বড় ব্যবধানে এই নির্বাচনে জয় পাব।’

এদিকে ডেমোক্রেটিক পার্টির তহবিলে অর্থ দেওয়ার ক্ষেত্রে ডিজনি পরিবারের পথ অনুসরণ করেছেন অনেকে। এই তালিকায় রয়েছেন হলিউডের চলচ্চিত্র প্রযোজক ডামোন লিন্ডেলফ, হলিউডের এজেন্স অ্যারি ইমানুয়েল, উদ্যোক্তা জিডেওন স্টেইন ও নেটফ্লিক্সের সহপ্রতিষ্ঠাতা রিডস হেস্টিংস। বিগত বছরগুলোতে ডেমোক্র্যাটদের দুই কোটি ডলারের বেশি অনুদান দিয়েছিল হেস্টিংস পরিবার।

বর্তমানে নির্বাচনী তহবিল সংগ্রহের দিক দিয়ে ট্রাম্পের রিপাবলিকান শিবিরের চেয়ে পিছিয়ে রয়েছে বাইডেনশিবির। গত জুন মাসের হিসাবে বাইডেনের সংগ্রহ করা তহবিলের পরিমাণ ছিল ২১ কোটি ২০ লাখ ডলার। এর বিপরীতে ট্রাম্প পক্ষের সংগ্রহ ছিল ২৩ কোটি ৫০ লাখ ডলার। এর কয়েক মাস আগেই কিন্তু তহবিল সংগ্রহে ট্রাম্পের চেয়ে ১০ কোটি ডলার এগিয়ে ছিল বাইডেনশিবির।

তবে ট্রাম্পের সঙ্গে বিতর্ক বিপর্যয়ের পর বাইডেন যে ভালোই তহবিল সংগ্রহ করছেন তা দেখাতে ব্যতিব্যস্ত ডেমোক্রেটিক দল। তাদের হিসাবে বিতর্কের দিন ও এর পরের দিন ছোট অর্থদাতাদের কাছ থেকে সবচেয়ে বেশি অনুদান পাওয়া গেছে। এর পরিমাণ ২ কোটি ৭০ লাখ ডলার। বাইডেনকে নিয়ে অর্থদাতাদের হতাশা কাটাতেই এই হিসাব–নিকাশ ফলাও করে প্রচার করছে তারা।

You may also like

প্রকাশক : জিয়াউল হায়দার তুহিন

সম্পাদক : হামীম কেফায়েত

গ্রেটার ঢাকা পাবলিকেশন
নিউমার্কেট সিটি কমপ্লেক্স
৪৪/১, রহিম স্কয়ার, নিউমার্কেট, ঢাকা ১২০৫

যোগাযোগ : +8801712813999

ইমেইল : news@dhakabarta.net