মঙ্গলবার, জুন ২৫, ২০২৪

সরকারি সংস্থাগুলো ‘হায়েনার মত’ ঝাঁপিয়ে পড়েছে: রেস্তোরাঁ মালিক সমিতি

“এখন যে পরিমাণ হয়রানি আমাদের করা হচ্ছে, এটা আসলে কোনো সভ্য দেশে হতে পারে না,” বলেন ইমরান হাসান।

by ঢাকাবার্তা ডেস্ক
সরকারি সংস্থাগুলো ‘হায়েনার মত’ ঝাঁপিয়ে পড়েছে: রেস্তোরাঁ মালিক সমিতি

স্টাফ রিপোর্টার।।

বেইলি রোডের গ্রিন কোজি কটেজে অগ্নিকাণ্ডে প্রাণহানির পর ঢাকার বিভিন্ন রেস্তোরাঁয় সরকারি সংস্থাগুলোর চালানো অভিযানকে ‘হয়রানি’ বলছে রেস্তারাঁ মালিক সমিতি। সমিতির মহাসচিব ইমরান হাসান বলেছেন, “এই মুহূর্তে অভিযানের নামে সারা ঢাকা শহরে একটি তাণ্ডব চলছে। আজকে (মঙ্গলবার) সকালে নবাবী ভোজ নামের একটি রেস্তোরাঁ বন্ধ করেছে। অথচ এই রেস্তোরাঁয় সরকারের প্রয়োজনীয় ১২টি সংস্থার লাইসেন্স রয়েছে।

“এখন রাজধানীর সকল রেস্তোরাঁয় সিটি করপোরেশন, রাজউক বা সরকারের আরো অনেক সংস্থা হয়রানি করছে। এখন যে পরিমাণ হয়রানি আমাদের করা হচ্ছে, এটা আসলে কোনো সভ্য দেশে হতে পারে না। আমি বলি হায়েনার মত ঝাঁপিয়ে পড়েছে।”

ঢাকার পুরানা পল্টনে আল-রাজী কমপ্লেক্সে সমিতির প্রধান কার্যালয়ে মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে কথা বলছিলেন ইমরান হাসান।রাজধানীতে অভিযানে এ পর্যন্ত ৪২টি রেস্তোরাঁ বন্ধ হওয়ার তথ্য দিয়ে তিনি বলেন, “এখন বলছে, গ্যাস সিলিন্ডারেরও লাইসেন্স লাগবে। সিলিন্ডার কি আমরা বানিয়েছি? সিলিন্ডার তো বাজার থেকে নিয়েছি। “তাহলে যারা সিলিন্ডার বিক্রি করছেন, তারা কি লাইসেন্স ছাড়া বিক্রি করছেন? আমরা আর কত লাইসেন্স দেখাব।”

গত বৃহস্পতিবার বেইলি রোডের গ্রিন কোজি কটেজে অগ্নিকাণ্ডে ৪৬ জনের প্রাণ যায়। বাণিজ্যিক ভবন হিসেবে অনুমোদন নিলেও সেখানে রেস্তোরাঁ করার অনুমতি ছিল না। কিন্তু আট তলা ওই ভবনে ব্যবসা করছিল ১৪টি রেস্তোরাঁ ও খাবারের দোকান। ভবনে ছিল না কোনো ফায়ার একজিট। একমাত্র সিঁড়িতে রাখা ছিল গ্যাস সিলিন্ডারসহ রেস্তোরাঁর মালামাল। কাচে ঘেরা ভবনের উপরের ফ্লোরগুলো থেকে নামতে না পেরে ধোঁয়ার বিষক্রিয়ায় অধিকাংশের মৃত্যু হয়।

ওই ঘটনার পর ধানমণ্ডি, খিলগাঁও, মিরপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় একই রকম অনিরাপদ পরিবেশে ভবনজুড়ে রেস্তোরাঁ গড়ে তোলার বিষয়টি নিয়ে আলোচনায় আসে। সমালোচনার মুখে রোববার থেকে রাজধানীতে যে যার মত করে অভিযানে নামে রাজউক, সিটি করপোরেশন, পুলিশ ও র‌্যাব।  আবাসিক ভবনে নিয়মের বাইরে গিয়ে বানানো রোস্তরাঁগুলো বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে এসব অভিযানে, আবার কোনো কোনো জায়গায় গ্রেপ্তার ও জরিমানাও করা হচ্ছে।

সোমবার ঢাকার ধানমন্ডির সাত মসজিদ সড়কের গাউসিয়া টুইন পিক ভবনে অভিযান চালিয়ে সব রেস্তোরাঁ বন্ধ করে দেয় রাজউক।আর বাণিজ্যিক অফিস করার অনুমোদন নিয়ে অবৈধভাবে রেস্তোরাঁ চালানোয় জিগাতলার কেয়ারি ক্রিসেন্ট টাওয়ার বন্ধ করে দেয় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন।

যেখানে আলোচনার সূত্রপাত, মঙ্গলবার সেই বেইলি রোডে যায় রাজউকের ভ্রাম্যমাণ আদালত। ‘একিউআই’ শপিং মলের বেইজমেন্টে রেস্তোরাঁ চালানোয় ‘নবাবী ভোজ’ নামে একটি খাবারের দোকান বন্ধ করে দেওয়া হয়।   এছাড়া ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন খিলগাঁওয়ের ‘নাইটিঙ্গেল স্কাইভিউ’ নামে একটি বহুতল ভবন সিলগাল করে দিয়েছে। ওই ভবনের একটি তলা বাদে সবকটিতে রেস্তোরাঁ রয়েছে।

 

আরও পড়ুন: ‘সাময়িক বন্ধ’ ব্যানার ঝুলিয়ে পালিয়েছে কাচ্চি ভাই ও সিরাজ চুইগোস্তর মালিকেরা

You may also like

প্রকাশক : জিয়াউল হায়দার তুহিন

সম্পাদক : হামীম কেফায়েত

গ্রেটার ঢাকা পাবলিকেশন
নিউমার্কেট সিটি কমপ্লেক্স
৪৪/১, রহিম স্কয়ার, নিউমার্কেট, ঢাকা ১২০৫

যোগাযোগ : +8801712813999

ইমেইল : news@dhakabarta.net