বৃহস্পতিবার, জুলাই ২৫, ২০২৪

সহজে ম্যানেজ করুন ঈদের আতিথেয়তা

by ঢাকাবার্তা
অতিথি আপ্যায়নের জন্য সাজানো খাবার

ফিচার ডেস্ক ।। 

কোরবানীর ঈদে আত্মীয়স্বজনের বাসায় যাওয়ার সময় আতিথেয়তা ম্যানেজ করা সত্যিই কিছুটা চ্যালেঞ্জিং হতে পারে, তবে কিছু কৌশল অনুসরণ করলে তা অনেক সহজ হয়ে যাবে। এখানে কিছু প্রস্তাবনা দেওয়া হলো:

১. ছোট ছোট পরিমাণে খান:

প্রত্যেক বাসায় ছোট ছোট পরিমাণে খাওয়ার চেষ্টা করুন। মূল খাবারের অংশ এবং মিষ্টি কিংবা অন্যান্য খাবারগুলি ছোট করে নেওয়া যেতে পারে। এতে করে অনেক খাবার একসাথে না খেয়ে ধীরে ধীরে সবকিছু উপভোগ করা যাবে।

২. সকালের নাস্তা হালকা রাখুন:

যেহেতু ঈদের দিন অনেক বাসায় যেতে হয় এবং অনেক খাবার খেতে হয়, তাই সকালের নাস্তা হালকা রাখুন। এতে দিনের বাকি সময়টায় সহজে খাবার হজম হবে এবং অস্বস্তি হবে না।

৩. আগে থেকে জানান:

যদি কোনো বিশেষ স্বাস্থ্যজনিত সমস্যা থাকে (যেমন ডায়াবেটিস বা উচ্চ রক্তচাপ), তবে সেই আত্মীয়দের আগে থেকে জানিয়ে দিন যাতে তারা আপনার জন্য স্বাস্থ্যকর খাবার প্রস্তুত করতে পারেন।

অতিথি আপ্যায়নের জন্য সাজানো খাবার

অতিথি আপ্যায়নের জন্য সাজানো খাবার

৪. পানি পান করুন:

প্রত্যেক বাসায় খাবার খাওয়ার আগে ও পরে পর্যাপ্ত পানি পান করুন। এটি খাবার হজম করতে সাহায্য করবে এবং অস্বস্তি কমাবে।

৫. আদব ও সৌজন্য:

প্রত্যেক বাসায় গিয়ে তাদের আতিথেয়তাকে সম্মান জানিয়ে একটু খাওয়া উচিত। এটা সৌজন্যতা ও সম্পর্কের সৌহার্দ্য বজায় রাখার জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

৬. আলাদা প্লেটে খাবার:

যদি কোনো আত্মীয় বেশি করে খাবার পরিবেশন করেন, তবে অনুরোধ করতে পারেন একটি আলাদা প্লেটে দিতে, যা আপনি পরে খেতে পারেন। এতে করে আপনি বেশি খাবার না খেয়ে নিজের পছন্দমতো পরিমাণে খাবেন।

৭. ব্যায়াম বা হাঁটাহাঁটি:

যদি সম্ভব হয়, তাহলে দিনের মধ্যে কিছু সময় বের করে হালকা ব্যায়াম বা হাঁটাহাঁটি করুন। এটি আপনার শরীরকে সক্রিয় রাখবে এবং খাবার হজমে সাহায্য করবে।

৮. বিশেষ খাবারগুলি এড়িয়ে চলুন:

কিছু খাবার যেমন মিষ্টি বা ভারী ভাজা খাবারগুলি এড়িয়ে চলতে পারেন বা পরিমাণে কম রাখতে পারেন। এতে আপনার স্বাস্থ্যের ওপর চাপ কমবে।

অতিথি আপ্যায়নের জন্য সাজানো খাবার

অতিথি আপ্যায়নের জন্য সাজানো খাবার

৯. আদর ও আপ্যায়ন গ্রহণ করুন:

যতটুকু সম্ভব চেষ্টা করুন আতিথেয়তা গ্রহণ করতে এবং তা উপভোগ করতে। এটি ঈদের আনন্দের একটি বড় অংশ এবং আপনার আত্মীয়রা আপনাকে খুশি দেখতে চায়।

১০. পরিমিতি বোধ বজায় রাখুন:

প্রত্যেক সময় পরিমিতি বজায় রাখার চেষ্টা করুন এবং বুঝে শুনে খাবার গ্রহণ করুন। এতে করে আপনি সুস্থ থাকবেন এবং আতিথেয়তা ম্যানেজ করতে সহজ হবে।

আশা করি এই টিপসগুলি আপনার জন্য উপকারী হবে এবং আপনি একটি সুন্দর ও সুস্থ কোরবানির ঈদ উদযাপন করতে পারবেন। ঈদ মোবারক!

You may also like

প্রকাশক : জিয়াউল হায়দার তুহিন

সম্পাদক : হামীম কেফায়েত

গ্রেটার ঢাকা পাবলিকেশন
নিউমার্কেট সিটি কমপ্লেক্স
৪৪/১, রহিম স্কয়ার, নিউমার্কেট, ঢাকা ১২০৫

যোগাযোগ : +8801712813999

ইমেইল : news@dhakabarta.net