মঙ্গলবার, জুন ২৫, ২০২৪

হাতঘড়ি দেখে প্রকৌশলী মিনহাজকে শনাক্ত করল পরিবার

আজ শুক্রবার সকালে স্বজনেরা মিনহাজের মরদেহ পান ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের লাশ ঘরে। পুড়ে অঙ্গার হয়ে যাওয়া মিনহাজকে চেনা যাচ্ছিল না।

by ঢাকাবার্তা ডেস্ক
হাতঘড়ি দেখে প্রকৌশলী মিনহাজকে শনাক্ত করল পরিবার

স্টাফ রিপোর্টার।।

রাজধানীর বেসরকারি একটি আইটি প্রতিষ্ঠানের সফটওয়্যার প্রকৌশলী মিনহাজ উদ্দিন গতকাল বৃহস্পতিবার সারা দিন কর্মস্থলে ছিলেন। সন্ধ্যায় কারওয়ান বাজারের কর্মস্থল থেকে বের হন তিনি। তবে অনেক রাত পর্যন্ত বাসায় না ফেরায় পরিবারের সদস্যরা দুশ্চিন্তায় পড়ে যান। কোনোভাবেই তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারছিলেন না। পরে এক বন্ধুর কাছ থেকে তাঁরা জানতে পারেন, বেইলি রোডের কাচ্চি ভাই রেস্তোরাঁয় গিয়েছিলেন মিনহাজ। অবশেষে আজ শুক্রবার সকালে স্বজনেরা মিনহাজের মরদেহ পান ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের লাশ ঘরে। পুড়ে অঙ্গার হয়ে যাওয়া মিনহাজকে চেনা যাচ্ছিল না। স্বজনেরা হাতঘড়ি দেখে তাঁর মরদেহ শনাক্ত করেন।

মিনহাজ ব্যক্তিগত জীবনে অবিবাহিত ছিলেন। তিনি তাঁর বড় ভাইয়ের পরিবারের সঙ্গে রাজধানীর বাসাবো এলাকায় থাকতেন।

মিনহাজের সহকর্মী আনিসুল ইসলাম আজ সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের লাশ ঘরের সামনে গণমাধ্যমকে বলেন, গতকাল সন্ধ্যায় মিনহাজ কারওয়ান বাজারের কর্মস্থল থেকে তাঁর এক বন্ধুর সঙ্গে বিরিয়ানি খেতে বেইলি রোডের একটি বহুতল ভবনের দ্বিতীয় তলায় কাচ্চি ভাই রেস্তোরাঁয় যান।

মিনহাজ প্রতিদিন কর্মস্থল থেকে বেরিয়ে বাসায় ফিরলেও রাত পৌনে ১২টা পর্যন্ত খোঁজ না পেয়ে তাঁর বড় ভাই ব্যাংক কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম চিন্তিত হয়ে পড়েন। রাত ১২টার পর মিনহাজের সঙ্গে খেতে যাওয়া তাঁর ওই বন্ধু ফোন করে জানান, মিনহাজের সঙ্গে তিনি বিরিয়ানি খেতে গিয়েছিলেন। কিন্তু বেইলি রোডের সেই রেস্তোরাঁয় আগুন লেগেছে। তিনি দোতলা থেকে লাফিয়ে পড়ে আহত হয়ে বেরিয়ে এলেও মিনহাজ ভেতরে আটকা পড়েছেন।

লাশ ঘরের সামনে দাঁড়িয়ে মিনহাজের বড় ভাই আমিনুল ইসলাম ফুপিয়ে ফুপিয়ে কাঁদছিলেন। তাঁর মুখ থেকে কোনো কথা বের হচ্ছিল না। স্বজনেরা তাঁকে সান্ত্বনা দিতে গিয়ে তাঁরাও কান্নায় ভেঙে পড়েন।

 

আরও পড়ুন: বেইলী রোডে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় প্রধানমন্ত্রীর শোক

You may also like

প্রকাশক : জিয়াউল হায়দার তুহিন

সম্পাদক : হামীম কেফায়েত

গ্রেটার ঢাকা পাবলিকেশন
নিউমার্কেট সিটি কমপ্লেক্স
৪৪/১, রহিম স্কয়ার, নিউমার্কেট, ঢাকা ১২০৫

যোগাযোগ : +8801712813999

ইমেইল : news@dhakabarta.net