বুধবার, মে ২২, ২০২৪

৩ ঘন্টার মাঝে কামিন্সের রেকর্ড ভেঙে আইপিএলের সবচেয়ে দামি স্টার্ক

অথচ ৩ ঘণ্টা আগেও নতুন ইতিহাস গড়েছিলেন স্টার্কের অস্ট্রেলিয়ান সতীর্থ প্যাট কামিন্স। ২০ কোটি ৫০ লাখ রুপিতে অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ককে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ দলে নেওয়ার পর অনেকেই ভেবেছিলেন এর চেয়ে বেশি দাম এবারের নিলামে আর হয়তো উঠবে না।

by ঢাকাবার্তা ডেস্ক
৩ ঘন্টার মাঝে কামিন্সের রেকর্ড ভেঙে আইপিএলের সবচেয়ে দামি স্টার্ক

খেলা ডেস্ক।।

মিচেল স্টার্ক কোথায় যাবেন? কলকাতায় না গুজরাটে? ২০ মিনিট ধরে আইপিএল নিলামে সেটারই লড়াই চলল। কখনো মনে হয়েছে স্টার্ক যাচ্ছেন কলকাতায়, কখনো গুজরাটে। কলকাতার গৌতম গম্ভীর ও গুজরাটের আশিস নেহরার এই দর-কষাকষিতে বাড়ছিল স্টার্কের মূল্যও। শেষ পর্যন্ত কামিন্সের রেকর্ড ৩ ঘন্টার মাঝে ভেঙে আইপিএলের নিলামের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ২৪ কোটি ৭৫ লাখ রুপিতে অস্ট্রেলিয়ার পেসার স্টার্ক গেছেন কলকাতায়।

অথচ ৩ ঘণ্টা আগেও নতুন ইতিহাস গড়েছিলেন স্টার্কের অস্ট্রেলিয়ান সতীর্থ প্যাট কামিন্স। ২০ কোটি ৫০ লাখ রুপিতে অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ককে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ দলে নেওয়ার পর অনেকেই ভেবেছিলেন এর চেয়ে বেশি দাম এবারের নিলামে আর হয়তো উঠবে না। তবে তখনো নাটক বাকি ছিল। দুবাইয়ে আজ ২০২৪ সালের আইপিএলের জন্য নিলাম অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

স্টার্ক অনেক দিন ধরেই স্রোতের বিপরীতেই চলছিলেন। যেখানে আইপিএলে খেলা এখন সব ক্রিকেটারের স্বপ্ন, সেখানে স্টার্ক আইপিএলের মোটা অঙ্কের অর্থ উপার্জনের সুযোগ বারবার দূরে ঠেলে দিয়েছেন। হাশিম আমলা-জো রুটরা বহুবার ‘না’ বলেও শেষ পর্যন্ত দূরে থাকতে পারেননি আইপিএল থেকে। স্টার্কও আইপিএল ফিরলেন, সেটাও ইতিহাস গড়ে।

 

এর আগে ২০১৪ ও ২০১৫ সালে খেলেছিলেন রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুতে। ২০১৮ সালে কলকাতা নাইট রাইডার্স তাঁকে কিনলেও ডান পায়ের পেশিতে ব্যথার কথা জানিয়ে ভারতে যাননি। অনেক দিন পর স্টার্ক আইপিএলে কেন ফিরছেন সেই ব্যাখ্যা তিনি দিয়েছেন গত সেপ্টেম্বরে। উইলো টক ক্রিকেট পডকাস্টে স্টার্ক বলেছিলেন, ‘দেখুন, আট বছর হয়ে গেছে। আমি অবশ্যই আগামী বছর আইপিএলে ফিরব। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্যও একটা ভালো প্রস্তুতি হবে। চলতি বছরের শীতকালীন মৌসুমের সঙ্গে যদি তুলনা করি, তাহলে পরের মৌসুমে এ সময়ে খুব একটা খেলাও নেই। তাই আমি মনে করছি, আইপিএলে নাম লেখানোর জন্য দারুণ সময় এটা।’

আইপিএলে স্টার্কের ভিত্তিমূল্য ছিল ২ কোটি রূপিতে। শুরুতে তাকে নিয়ে লড়াই চলে দিল্লি ক্যাপিটালস ও মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের মধ্যে। ৯ কোটি ৬০ লাখ রুপি পর্যন্ত এই দুই দলের মধ্যেই লড়াই চলে। এরপর ৯ কোটি ৮০ লাখ রুপি দাম হাঁকিয়ে লড়াইয়ে পা রাখে কলকাতা। স্টার্ককে নিয়ে বাকি সময়টা কলকাতা ও গুজরাটের মধ্যে চলে যুদ্ধ। বাকি ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো এই লড়াইয়ে দর্শক হয়েই থাকে।

এর আগে আইপিএলের ইতিহাসেরই সবচেয়ে দামি ক্রিকেটার হয়ে গিয়েছিলেন কামিন্স। কামিন্স ভেঙে দিয়েছিলেন গত মৌসুমে স্যাম কারেনের ১৮ কোটি ৫০ লাখ রুপির রেকর্ড। রেকর্ড দামে ইংলিশ অলরাউন্ডারকে কিনেছিল পাঞ্জাব কিংস। এরপর কামিন্সের রেকর্ড ভাঙে স্টার্কের হাতে।

 

 

আরও পড়ুন: আইপিএলের ইতিহাসে সবচেয়ে দামি ক্রিকেটার কামিন্স

You may also like

প্রকাশক : জিয়াউল হায়দার তুহিন

সম্পাদক : হামীম কেফায়েত

গ্রেটার ঢাকা পাবলিকেশন
নিউমার্কেট সিটি কমপ্লেক্স
৪৪/১, রহিম স্কয়ার, নিউমার্কেট, ঢাকা ১২০৫

যোগাযোগ : +8801712813999

ইমেইল : news@dhakabarta.net